বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

আর্জেন্টিনাঃ গ্রামাঞ্চল ও সামাজিক সংঘর্ষ

গত দুই মাস যাবত আর্জেন্টিনার রাজনৈতিক আলোচ্য সূচী নির্ধারিত হয়েছে সরকার ও গ্রামাঞ্চলের মধ্যের সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে। “গ্রামাঞ্চল” হচ্ছে এক বিশেষ শ্রেণীর পরিচয়জ্ঞাপক যার মধ্যে বহু জমির মালিক থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, সয়াবিন সংগ্রহের জন্য জমিভাড়া প্রদানকারী, ক্ষুদ্র উৎপাদক ও গ্রামীন কর্মজীবিরা অন্তর্ভুক্ত। সমস্যার সূচনা হয়েছে যখন সরকার কৃষিজাত পন্য বিশেষ করে শষ্যের রপ্তানীর উপরে কর বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়। এই কর “রিটেনশনস” নামে পরিচিত যার মাধ্যমে সমগ্র বিক্রয় আয়ের উপরে সরকার ভাগ বসায় বিশেষত উৎপাদকদের অতি উপার্জনের উপরে। সরকারের অর্থনৈতিক নীতির কারণ এই অতিরিক্ত মুনাফা অর্জন সম্ভব হয়েছে কারন বিগত বছরগুলোতে স্থানীয় মুদ্রার তুলনায় ডলারের অনেক উচ্চমূল্য ছিল। ফলাফল সরূপ রপ্তানী বেশ সুবিধাজনক হয়েছে – যেহেতু আপনি ডলার উপার্জন করবেন এবং স্থানীয় পেসো অনেক কম দামে পাবেন। তবে মুদ্রাস্ফীতির ঊর্ধ্বগতির কারণে এ অবস্থা ক্রমশ পাল্টে যেতে থাকলেও এখনও বাইরে বিক্রি করার আগ্রহ বিদ্যমান। রিটেনশনস কর পরিবর্তনশীল প্রক্রিয়ায় আরোপ করা হয়েছেঃ যদি আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য বেড়ে যায়, করের হারও বাড়বে!


করডোবা রাজ্যে সড়ক অচল করার ছবি, তুলেছেন পাবলো ডেভিড ফ্লোরস, ক্রিয়েটিভ কমনস লাইসেন্সের আওতায় ব্যবহৃত।

উদাহরণসরূপ, এখন সয়াবিন শিল্প ৪০% – ৪৫% হারে কর প্রদান করে থাকে। ফলে নতুন কর বৃদ্ধি কঠোর সংঘর্ষ সূচনা করেছেঃ সপ্তাহের পরে সপ্তাহ ধরে গ্রামাঞ্চলের সাথে সম্পর্কযুক্ত এই সেক্টর সড়কপথ অবরুদ্ধ করে রেখেছে এবং শস্য, দুগ্ধ ও মাংস পরিবহনকারী ট্রাক যাতায়াত করতে দিচ্ছে না। যার কারণে বড় বড় শহরগুলোতে অনেক মৌলিক সামগ্রীর অভাব দেখা দিয়েছে। দুটো সময়ে প্রতিবাদের মাত্রা কমানো হলেও, কর না কমানো সরকার এবং কর কমানোর দাবীরত গ্রামাঞ্চলের সাথে সম্পর্কযুক্ত সেক্টরের মধ্যে সংঘর্ষ বিরাজ করছে।

কিন্তু, সরকার ও গ্রামাঞ্চলের মধ্যে সংঘর্ষকে ব্লগাররা কিভাবে তুলে ধরেছে ? চলুন দেখা যাক কিছু মতামত।

প্রথম শুরু করা যাক সেই পক্ষ দিয়ে যারা গ্রামাঞ্চলের সাথে সম্পর্কযুক্ত সেক্টরের প্রতিবাদ পদ্ধতি নিয়ে সমালোচনামুখর। ডিবেট পলিটিকো প্রকাশ করেছে আর্জেন্টাইন মানবাধিকারবাদী ও নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী এডলফো পেরেজ ইসকুইভেলের-এর একটা লেখা, যেখানে বলা হয়েছে, “বৃহৎ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সয়াবিন তেল কোম্পানীগুলো সরকারকে কর কমানোর জন্য প্ররোচনা ও চাপ প্রয়োগ করছে। তারা লাখ লাখ টাকা উপার্জন করছে তারপরেও আরো বেশী বেশী চায়। পরিবেশের বিপর্যয়, কেবল মাত্র একই শষ্য উৎপাদনের পরিনতি, প্রাকৃতিক বন সম্পদের হ্রাস, এগ্রো-টক্সিনের বাছবিচারহীন ব্যবহার, এবং জনগণের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি দিকে তাদের কোন খেয়াল নেই”। আর্ট পলিটিকা (স্প্যানিশে) ফ্রেন্টে ক্যামপেসিনোর (রুরাল ফার্মারস ফ্রন্ট) একটা বক্তব্য পুনরায় তুলে ধরেছে যেখানে তারা সমালোচনা করেছে গ্রামাঞ্চলের সাথে সম্পর্কযুক্ত সেক্টরের প্রতিবাদের পন্থা। ক্লারো ডি লুনা (স্প্যানিসে) বিশ্লেষন ও সমালোচনা করেছে গ্রামাঞ্চলের কঠোর প্রতিবাদে সেক্টরগুলোর অবস্থান যারা “গ্রামাঞ্চল’ কে পুরো “দেশ” হিসাবে চিহ্নিত করার চেষ্টা চালায়। পরিশেষে, অর্থনীতিবিদদের একটা যৌথ ব্লগ, লস ট্রেস সিফলাডোসের (স্প্যানিসে) একজন লেখক, ল্যারী এখনও দোষ স্বীকার করে নিতে বলেন, “গনতন্ত্রে প্রত্যাবর্তনের পরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গনতন্ত্রবিরোধী আচরণে জন্য”, গ্রামাঞ্চলের সাথে সম্পর্কযুক্ত সেক্টরগুলোর সড়কপথ অবরুদ্ধের সিদ্ধান্ত ও এর ফলে বৃহৎ শহরগুলোতে খাদ্য ঘাটতি সৃষ্টির বিষয়টি উল্লেখ করে।

সরকারকে সমালোচনাকারী ও গ্রামাঞ্চলের ঘনিষ্ঠ সহচরদের ব্লগে যাবার আগে আপনি দুটো মজার জিনিস দেখে নিতে পারেন। একদিকে, এ্যান্ডি টো (স্প্যানিসে) অবরুদ্ধ সড়কপথ ও ভূক্তভোগীদের স্থানের মানচিত্র এঁকেছেন এবং জনগণের মধ্যে অর্থনৈতিক অন্যায্যতার পরিমাণ বিচার করেছেন। তার সবিশেষ বক্তব্য হচ্ছে, যেখানে উপার্জনের সাম্যতা বেশী সেখানে প্রতিবাদও বেশী। কিন্তু এটা খুবই মজার যে বেশী কর আদায়ের সয়াবিন সংগ্রহের স্থান ও এই প্রতিবাদের স্থানগুলোতে বিক্ষোভ একই সময় শুরু হয়েছে। অন্যদিকে, এনট্রি রিয়স রাজ্যের একদল ডিজাইনার সয়াবিন ক্ষেতে আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিনা ফার্নানদেজের ছবি এঁকেছে।

অন্য পক্ষ গ্রামাঞ্চলের পক্ষে দাড়িয়েছে এবং কার্সনারের সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনার বান নিক্ষেপ করেছে। একটা মজার বিষয় হচ্ছে গ্রামাঞ্চলের পক্ষে দাড়ানো বেশীর ভাগ ব্লগগুলো তৈরী করেছে প্রতিবাদে অংশ নেয়া উৎপাদকরা। মার্কা লিকুইডাতে (স্প্যানিসে) তারা সয়াবিন চাষের নেতিবাচক ফলাফল জানিয়ে প্রদত্ত সরকারের বক্তব্যকে সমালোচনা করেছে, যেমন, এতে নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয় না। প্যাট্রিয়া চাকারেরাতে (স্প্যানিশে) তারা যুক্তি দিয়ে বোঝাতে চেষ্টা করেছে যে সরকার সংঘর্ষ সৃষ্টি হয় এমন কোন সমস্যাকে আসলে সমাধান করতে চায় না এবং প্রকৃতপক্ষে তারা আরো বেশি প্রতিবাদের প্ররোচনা দিচ্ছে। অবশ্য এই ব্লগের উদ্দেশ্য হচ্ছে সরকারের রিটেনশনস করকে অন্যায্য হিসাবে চিহ্নিত কারী পোস্ট তুলে ধরা। আরেকটা ব্লগ ভিভা এল ক্যাম্পো (স্প্যানিসে) রিটেনশনস কর উদ্ভূত বিক্ষোভকে উসকে দেয়ার জন্য ইন্টারনেট আবেদনে সাক্ষর সংগ্রহ করছে। বুয়েনস আইরিস এর রাজ্য ট্রেনকিউ লউকুইনের একদল উৎপাদক প্রতিবাদে সমর্থন প্রদানের কারণ ব্যাখ্যা করতে একটা সাইট তৈরী করেছে। রিফান্ডার লা রিপাবলিকা আর্জেন্টিনা (স্প্যানিসে) বলেছে তারা সরকারের কৃষি নীতির কারণে সৃষ্ট আক্রমণ ও অপমানে হতোদ্যম হয়নি।

বর্তমানে গ্রামাঞ্চলকে প্রতিনিধিত্বকারী সেক্টর প্রতিবাদ বন্ধ করে রপ্তানী করের বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে সরকারের সাথে পুনরায় সমঝোতা চালাচ্ছে । তবে সন্ধির সম্ভাবনা এখনও সন্নিকটে দেখা যাচ্ছে না।

1 টি মন্তব্য

  • […] por exportación de granos. El texto está disponible en español, inglés, portugués, italiano y bengali. La idea de la entrada no es analizar el tema; más bien, es proveer a los interesados de una serie […]

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .