বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ইকুয়েডরঃ কলম্বিয়ার সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন

ইকুয়েডরের উত্তর সীমান্তে কলম্বিয়ার ভেতরের ঘটনা নিয়ে ইকুয়েডরের অধিবাসীরা বিভক্ত। সেখানে কলম্বিয়ার একদল সেনা (সীমান্ত অতিক্রম করে) একদল ফার্ক গেরিলাকে আক্রমণ করে এবং তাদের শীর্ষ স্থানীয় নেতা রাউল রেয়েস কে হত্যা করে। এর ফলে প্রেসিডেন্ট রাফায়েল কোররিয়া কলোম্বিয়ার সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। অনেকে তার সাথে একমত কিন্তু কেউ কেউ জানতে চাচ্ছেন যে আসলে কি হচ্ছে যখন ইকুয়েডরের বিদেশ আর অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা মন্ত্রী সমন্বয়ক, গুস্তাভো লারিয়া জানিয়েছেন যে রাউল রেয়েসের সাথে গত জানুয়ারিতে তার একটি সভা সভা হয়েছে এমন এক স্থানে যেটা কলোম্বিয়ার বা ইকুয়েডরের মধ্যে পড়ে না।

ক্যাম্বিয়েমস ইকুয়েডরে (স্প্যানিশ ভাষায়) অনেক বেশী তথ্য পাওয়া যায় যা বিভিন্ন রিপোর্টাররা লেখেন এবং এটি ইতিমধ্যে ওয়েবে বেশ সাড়া ফেলেছে। এলেক্স আনাজকো, ওমার ভরগাস আর জাইমে ইজুরিয়েটা তাদের মতামত প্রকাশ করেছে অত্র অন্চলের এই সমস্যার ব্যাপারে:

সবার সম্মুখে কোন কিছু ঘটছে না। আমি অবাক হয়েছি দেখে যে কলম্বিয়ার সেনার অভিযানের ব্যাপারে সবার অভিযোগ আছে, কিন্তু কার্যত: কেউ একই সাথে জঘন্য অপরাধ করা গেরিলাদের (যারা কিছুদের জন্য যোদ্ধা আর কিছু লোকের জন্য সন্ত্রাসী) কর্তৃক জাতীয় নিরাপত্তার উপর হামলা নিয়ে বিরূপ কিছু বলছে না। সাধারণ জ্ঞান আর সুবুদ্ধি নিম্ন মানের ভাবাবেগের উপর কাজ করছে।

কলম্বিয়ার সাথে এই সংঘর্ষের ব্যাপারে আমাদের শুধু ঈষদুষ্ণ প্রতিক্রিয়া আর কপটতা, এমন একটা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করেছে যা এলাকায় অস্থিরতা তৈরি করছে। শাভেজ ও খুব বেশী উদাসীন ছিল না। সেও ফার্ক এর জন্য সাহায্যকারীর ভূমিকা পালন করেছে।

জনপ্রিয় কোবেরটুলা ডিজিটাল (স্প্যানিশ ভাষায়) নতুন তথ্যের সন্ধানে টুয়িট স্ক্যান কে অনুসরণ করছে। খ্রিস্টিয়ান এস্পিনোসা তার পাতায় লিখেছেন:

টুয়িট স্ক্যানে লোকের নির্দিষ্ট প্রতিক্রিয়া মাইক্রোব্লগিং এর মত করে বোঝা যায় এবং এখানে অন্য কোন সাইটের মতো অনির্দিষ্ট তথ্যের আধিক্য কম। এখন বেশীর ভাগ গুগুল ব্লগের সাইটগুলোতেই এই সমস্যা দেখা যায় কারন তারা পরিণত হয়েছে ব্লগ ফরম্যাটে পরিণত হওয়া সংবাদ সংস্থায়।

ক্রোনিকা সিরো (স্প্যানিশ ভাষায়) মনে করে যে কোররিয়া আর ইকুয়াডোরিয়ানরা সন্ধি ক্ষণে খুব কঠিন সময় কাটাচ্ছে। কারন সমস্ত জাতি চিন্তিত আর যারা রেয়েসকে হত্যা করেছে তাদের মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে অভিযোগ করছে:

সাধারণ এই কথা টা বলা যায়: “গেরিলারা তাদের আইন অনুযায়ী মারা গেছে।” কিন্তু অন্য আর একটা দেশে গিয়ে , ট্রফি (রেয়েস এর লাশ) নিয়ে যাওয়া, বাকি সব বাদ দেওয়া, এমন কি আহত দের ফেলে রেখে যাওয়া, একটা জিনিষ যা অন্য ধরনের ব্যাখ্যা দাবি করে। ব্যক্তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা কি শুধুমাত্র সেইসব জায়গার জন্য যেখানে আপনার আইন গত অবস্থান নেই? এটা তখন আপনি করতে পারেন যতক্ষণ আপনার রাষ্ট্রের ক্ষমতা আর আশ্রয় থাকে। আর এখানে এটা পরিষ্কার যে আমেরিকা তার শক্ত ঘাঁটি ধরে রাখবে।

এল ফেদারালিস্টা (স্প্যানিশ ভাষায়) একটা ব্লগ যেখানে আমাদের উদ্ধৃতি আগেও দেয়া হয়েছে আর আজকে তার সাথের ব্লগারদের থেকে এখানে মতামত আলাদা যেখানে বলছে যে প্রেসিডেন্ট কোররিয়া তার পদের যোগ্য না আর তাকে সম্ভাব্য জাতীয় বিশ্বাসঘাতক মনে করা হচ্ছে এই নথির জন্য:

ইকুয়েডরের সরকারের অবস্থা আন্তর্জাতিক ভাবে দুর্বল। এর মাঝে দেশেও রাফায়েল কোরেরার সরকারের রাজনৈতিক ক্ষমতা খুবই কম শক্তি সম্পন্ন, যেখানে তার জনপ্রিয়তা কমছে স্থানীয় আর আন্তর্জাতিক ভাবে। এর কারন হিসেবে রয়েছে তেলের উচ্চ মূল্য আর কারাকাসের সরকারের সাথে রাজনৈতিক সমঝোতার অভাব।

রাফায়েল কোররিয়া কি তৈরি আছেন আন্তর্জাতিক আর নির্দলীয় তদন্তের ফলাফল মানার জন্য ফার্ক এর কম্পিউটারে দলিল পাওয়া নিয়ে?

লা ভোজ দে গুয়ামোতে ইকুডরিয়ান সেনা বাহিনীর এক সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে যে সীমান্তে হাজার হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছিল। এটা আমাজন এর অংগরাজ্য সুকুম্বিয়োসে থাকা ১০,০০০ সৈন্যের অতিরিক্ত:

জেনারেল লুই গারজোন সোমবারে বলেছেন ইকুয়েডর, কলোম্বিয়ার সীমান্তে রাখা ১১,০০০ সৈন্য থেকে ৩২০০ জনকে আমাজন এর অংগরাজ্য সুকুম্বিয়োসে নিয়ে এসেছে। এই সুকুম্বিয়েস হচ্ছে কলোম্বিয়ার ফার্কদের আক্রমণের স্থান যেখান থেকে কূটনৈতিক সমস্যা শুরু হয়েছিল।

লিব্রোস, অতোরেস এ রিয়েসগোস নামক ব্লগ যা সাধারণত সাহিত্য আর বই নিয়ে লেখে আজকে ইকুয়েডেরিয়ানদের আহ্বান করছে শান্ত থাকতে। তারা তাদের লেখা আরম্ভ করেছে রিল্যাক্স বলে আর তার পর বলেছে:

আপনি কি এমন কোন সরকার প্রধান দেখাতে পারবেন যে সংঘর্ষ শান্তিপূর্ণ ভাবে থামানোর জন্য ইচ্ছা দেখাবে না? আপনি কি বিশ্বাস করবেন যে একজন প্রেসিডেন্টের মেডেলীন দলের সাথে খোলা মেলা সম্পর্ক আছে? আমি পারি না। আর আমার দেশের সরকারকে পক্ষাবলম্বন করছি না, মূল বিষয়টি হচ্ছে এই ব্যাপারটা বোঝা যে বৈদেশিক নীতি কি করে অপরাধীদের খেলা। ফলাফলের গুরুত্ব আর যা করা দরকার তা করার অক্ষমতাটুকুও বিবেচনায় আনা দরকার। ইকুয়েডেরিয়ান সৈন্যদের এই অভিযানটির ব্যাপারটি বলা সোজা ছিল না? না, কারন তারা রেয়েস্কে হত্যা করত না, বরং তাকে দেশের বাইরে বের করে দিত।

অনলাইন এডিশন আছে আর জাতীয় ব্যাপার ছাপায় এমন ইকুয়েডোররের একটা সংবাদপত্র লা হোরা, তাদের একটি দীর্ঘ লেখায় ইকুয়েডরের ব্যাপারটায় আন্তর্জাতিক সমর্থনের ব্যাপারে লিখেছে এবং ই এফ এ থেকে উদ্ধৃতি দিয়ে অন্যান্য জিনিষের মধ্যে জানিয়েছে:

ব্রাজিলের কংগ্রেস সদস্য এবং মেরকোসুর এর সংসদের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফ্লোরিসভালদো ফিয়ারের প্রতিক্রিয়া বেশ জোরালো ছিল, যিনি বলেছেন যে কলম্বিয়া বিশ্বাসযোগ্য পড়শী না আর কলম্বিয়ার সরকারের অবস্থান এলাকার একাত্মতা নষ্ট করে। বিশেষ করে যখন ফার্ক এর উপর আক্রমণ ইকুয়েডরের মাটিতে হয়েছে যখন বিশেষ করে কলম্বিয়ায় দক্ষিণ আমেরিকার রাষ্ট্রগুলোর ইউনিয়নের একটা শীর্ষ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল ওই মাসের শেষে।

ইকুয়েডোরে রাউল রেয়েসের মৃত্যু নিয়ে এগুলো হল প্রথম দিকের প্রতিক্রিয়া যা অন্য কোন পরিস্থিতিতে মনে হত বিচ্ছিন্নতা বাদী দল ফার্কের উপর একটা বড় ধরনের আঘাত, আর কলম্বিয়ার সরকারের জন্য একটা জয়ের ব্যাপার। এখন এটা বোঝা বেশ কঠিন যে এটা কি করে সমাধান করা যাবে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .