বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

গ্লোবাল ভয়েসেস: ২০০৭ বর্ষ পরিক্রমা এবং ২০০৮ এর ব্যাপক পরিকল্পনা

এটা হয়ত কেউ ভাবতেও পারেনি যে গ্লোবাল ভয়েসেস এর ২০০৭ সালের সবচেয়ে পঠিত লেখা হবে চায়নার পিঁপড়া উৎপাদনকারীদের নিয়ে একটি রিপোর্ট

এই ওয়েবসাইটের সবচেয়ে জনপ্রিয় লেখাগুলো ছিল মূলত: সে খবরগুলোই যা আন্তর্জাতিক মিডিয়ার জন্যে (এবং গনতন্ত্রকামী লোকদের জন্যে) গুরুত্বপূর্ন উৎস ছিল , যেমন মায়ানমার এবং পাকিস্তানের প্রতিবাদগুলো এবং কেনিয়ার সাম্প্রতিক অস্থিতিশীল অবস্থা। এছাড়াও কিছু লেখা বেশ কিছু পাঠকদের আকর্ষন করেছে কারন অন্য কেউ তাদের নিয়ে রিপোর্ট করেনি যেমন বার্বাডোস, ডোমিনিকা, জামাইকা, কেইম্যান আইল্যান্ডস, হন্ডুরাস এবং ওমানের স্থানীয় প্রাকৃতিক দুর্যোগগুলো।

বিগত দিনগুলিতে গ্লোবাল ভয়েসেসের লেখক ও সম্পাদকরা তাদের আন্চলিক ব্লগোস্ফিয়ারের সেরা লেখাগুলোকে তুলে ধরেছেন। আপনারা পড়ে দেখুন আমেরিকা মহাদেশ, ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুন্জ, ককেশাস অন্চল, হংকং, কোরিয়া এবং ফিলিপাইনের ব্লগারেরা কোন বিষয়গুলিকে ২০০৭ সালের সর্বোচ্চ গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করছেন। অন্যদিকে সিরিয়ান, মরোক্কান, আরবী এবং পর্তুগীজ ভাষাভাষী ব্লগারদের ভবিষ্যতের জন্যে আশার সাথে মিলে আপনিও আশান্বিত হোন।

২০০৭ সালে গ্লোবাল ভয়েসেসের সবচেয়ে আকর্ষনীয় লেখাগুলো:

পাঠকের সংখ্যা দিয়ে সবসময় লেখার মান নির্ধারন করা যায় না, তবুও এখানে আমরা ২০০৭ সালে গ্লোবাল ভয়েসেস এর বেশী পঠিত কিছু লেখা নিয়ে আলাপ করব।

(সর্বশান্ত পিঁপড়া উৎপাদনকারীরা শেনইয়াঙে বিক্ষোভ করছেন ছবি: ‘দ্যা ফ্রি চায়না'র সৌজন্যে)

অনেক সেরা পোস্ট আমাদের এডভোকেসী সাইটে প্রথমে প্রকাশিত হয়েছে যেগুলো মূলত: অনলাইন সেন্সরশীপ এবং বাক স্বাধীনতা নিয়ে লেখা। চায়নার পিঁপড়া উৎপাদনকারী অথবা জিয়ামেনে পরিবেশ সংক্রান্ত প্রতিবাদের পোস্টগুলোর জনপ্রিয়তার কারন স্থানীয় মিডিয়া এবং ব্লগগুলোকে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সেন্সর করা হয়েছিল।

গ্লোবাল ভয়েসেস এ কোন লেখা জনপ্রিয় হওয়ার জন্যে রক্তপাত দরকারী নয় তবে মনে হয় তা কিছুটা সাহায্য করে। সাদ্দাম হোসেনের ফাঁসি, দক্ষিন কুর্দিস্তানে একটি হনর কিলিং (মর্যাদা রক্ষার জন্যে খুন), এবং রাশিয়ার একটি নিও নাৎসী হত্যার ভিডিও সংক্রান্ত পোস্টগুলো প্রচুর পাঠককে টেনেছে।

২০০৮ সালে গ্লোবাল ভয়েসেস:

২০০৭ সালের প্রথম থেকে বর্তমানে গ্লোবাল ভয়েসেস এর পাঠক সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন হয়ে গেছে। এবং একটি ইংরেজী ভাষার সাইটের জন্যে যা অসামন্জস্যপূর্ন, যুক্তরাষ্ট্রের পরে চায়না থেকে আমারা বেশীর ভাগ পাঠক পাচ্ছি।

২০০৮ সালে আমরা ইংরেজী ভাষাভাষী নয় এমন দেশগুলো থেকে আরও পাঠক পাব এটি আশা করছি কারন আমাদের অবিশ্বাস্য করিৎকর্মা লিঙুয়া অনুবাদকরা প্রায় ডজনখানেক ভাষায় গ্লোবাল ভয়েসেসের পোস্টগুলোর অনুবাদ প্রকাশ করছে যার মধ্যে আরবী, বাংলা এবং মালাগাসী ভাষা রয়েছে। তারা ওয়েবের সর্বোচ্চ কলেবরের স্বেচ্ছাসেবী অনুবাদক কমিউনিটি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে।

আন্তর্জাতিক মূলধারার মিডিয়ারা এখন আরও বেশী করে বিশ্বব্যাপী ব্লগারদের নিয়ে প্রশ্ন করা শুরু করেছে। গ্লোবাল ভয়েসেসের লেখক এবং সম্পাদকরা এখন নাগরিক মিডিয়া এবং রাজনৈতিক বিষয়গুলোর জন্যে প্রায় নিয়মিতভাবেই  সংবাদপত্র, ম্যাগাজিন, রেডিও এবং টেলিভিশনে স্বাক্ষাৎকার দিয়ে আসছেন বা মিডিয়া রিপোর্টে তাদের উল্লেখ করা হচ্ছে।  আমাদের নতুন বিশেষ কাভারেজ পাতা, যেখানে নির্বাচিত ব্লগগুলো থেকে সরাসরি ফিড যোগ করা হয়, বিভিন্ন অনলাইন মিডিয়ায় আলোচিত হয়েছে এবং লিন্ক করা হয়েছে।

সবার শেষে গ্লোবাল ভয়েসেসের আন্চলিক ও ভাষা সম্পাদকেরা যেইসব দেশ আমরা এখনও কাভার করতে পারিনি সে সব দেশের ব্লগারদের সাথে সংযোগ স্থাপন করবেন। তাদের আমাদের একশ'র ও বেশী স্বেচ্ছাসেবী ব্লগারদের নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত হবার আহ্বান জানানো হবে (আপনিও যদি অন্তর্ভুক্ত হওয়ার যোগ্য মনে করেন তবে একটি ইমেইল করে দিন না আমাদের!) । গত অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত আমাদের লেখকদের পোস্টের সংখ্যা ২০% বৃদ্ধি পেয়েছে।

আসন্ন নতুন প্রকল্পগুলো

আমাদের রাইজিং ভয়েসেস কার্যক্রম সম্প্রতি জামাইকা, কেনিয়া, ইরান, মাদাগাস্কার এবং উরুগুয়ের পাঁচটি নতুন ব্লগিং প্রকল্পকে ক্ষুদ্র সহায়তা প্রদান করেছে। প্রথম রাউন্ডে সহায়তা পাওয়া পাঁচটি প্রকল্প যেগুলো বাংলাদেশ, বলিভিয়া, কলম্বিয়া, ভারত এবং সিয়েরা লিয়নে  চলছে ইতিমধ্যে সাফল্য লাভ করেছে।

রয়টার্সের সহায়তায় গ্লোবাল ভয়েসেস একজন পরিবেশ সম্পাদক, জুলিয়ানা রটিচ এবং একজন নতুন ভিডিও এডিটর জুলিয়ানা রিন্কন পারা কে নিয়োগ দিয়েছে (অবশ্য জুলিয়ানা নাম হওয়াটা চাকুরির বিজ্ঞাপনে যোগ্যতা হিসেবে উল্লেখিত ছিলনা)। এই দুই সম্পাদক ওই দুই বিষয়ে বিশ্বব্যাপী আমাদের কাভারেজ বাড়াবেন।

গ্লোবাল ভয়েসেস রয়টার্সের সাথে যৌথভাবে কাজ করবে একটি নতুন প্রকল্পে যার মাধ্যমে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে বিশ্বব্যাপী ব্লগাররা কি মন্তব্য করছেন তা তুলে ধরা হবে।

এগুলো হচ্ছে গ্লোবাল ভয়েসেসের কমিউনিটি থেকে ২০০৮ সালে উল্লেখযোগ্য যেসব কার্যক্রম চলবে তার কিছু ধারনা। আমাদের পাঠক, ব্লগার, অনুবাদক, উদ্ভাবক এবং সাথীদের জানাচ্ছি নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

- সোলানা লারসেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .