বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

শান্তিতে থাকুন পাকিস্তানের বেনজীর ভুট্টো

পাকিস্তানের বেনজীর ভুট্টো (৫৪) আজ রাওয়ালপিন্ডিতে একটি রাজনৈতিক জনসভা শেষে আততায়ী হামলায় নিহত হয়েছেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী রাওয়ালপিন্ডি পাকিস্তানের অন্যতম নিরাপদ শহর এবং সেখানে নিরাপত্তা বাহিনীর লোকজন গিজগিজ করে। বিবিসির এক রিপোর্ট অনুযায়ী আরেকটি তথ্য মিলে যায় সেটি হচ্ছে এই একই স্থানে পাকিস্তানের প্রথম প্রধান মন্ত্রী আততায়ীর হাতে নিহত হয়েছিল।

তার মুত্যু পাকিস্তানের রাজনৈতিক ভবিষ্যত প্রশ্নবিদ্ধ করে দিয়েছে এবং অনেকে বলছে পাকিস্তান গৃহযুদ্ধের দিকে এগিয়ে যেতে পারে।

গণতন্ত্রের জন্যে লড়তে থাকা এক নেত্রীর কি করুন মৃত্যু হলো। এ বছর পাকিস্তানে তার প্রত্যাবর্তন খুব অপয়া ভাবেই শুরু হয়েছিল যখন বিমানবন্দর থেকে তার পৈত্রিক বাড়ীতে যাওয়ার সময় শোভাযাত্রায় বোমা হামলা করা হয়েছিল তাকে মারার জন্যে। তার মৃত্যুতে পাকিস্তানের রাজনীতি আবারও অনিশ্চয়তার দিকে এগুলো। এখন প্রশ্ন আগামী মাসে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন হবে কি না।

বেনজীর নেত্রী হিসেবে বিতর্কের উর্ধ্বে ছিলেন না। রাজনৈতিক মতবাদের দিক দিয়ে তিনি তার পিতা জুলফিকার আলী ভুট্টোর অনুসারী ছিলেন। বাগ্মী হিসেবে পরিচিত বেনজীর বিলেত এবং আমেরিকা থেকে পড়াশোনা করেছেন এবং দেশে ফিরে এসে তার পিতার পাকিস্তান পিপলস পার্টিতে যোগ দিয়েছেন এবং পরবর্তীতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। মেট্রোব্লগিং লাহোরের একজন ব্লগার বলেছেন, যদিও তিনি বেনজীরের রাজনীতি সমর্থন করেন না তার এই অসময়ের মৃত্যুকে একটি বিয়োগাত্মক ঘটনা হিসেবেই দেখছেন:

আমি ব্যক্তিগতভাবে তার বা তার পার্টির (পিপিপি) রাজনীতি সমর্থন করি না। কিন্তু এটি সবধরনের সুস্থ রাজনীতির বিপক্ষে। এটি বলাই বাহুল্য যে এমন ভাবে চলে যাওয়া মানে এভাবে অস্বাভাবিকভাবে মৃত্যু বরন করা যে কারো ক্ষেত্রেই কাম্য নয়। ভবিতব্য, আমাদের জানা উচিৎ, বেনজীর লিয়াকত গার্ডেন্সের একটি রাজনৈতিক সভায় যোগদান শেষে ফেরার সময় গুলীর আঘাতে (প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী) নিহত হয়েছেন। লিয়াকত গার্ডেন্স শুধু পাকিস্তানের প্রথম প্রধানমন্ত্রী খান লিয়াকত আলী খানের নামেই নামান্কিত হয়নি এটি সেই একই স্থান যেখানে তিনি আততায়ীর বুলেটের আঘাতে মৃত্যুবরন করেছিলেন।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .