বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মেক্সিকো: তাবাস্কোতে জরুরী অবস্থা

ছবি: সেলুলয়েড, ক্রিয়েটিভ কমন্স লাইসেন্সের অধীনে ব্যবহৃত

এ মাসের প্রথম থেকে মেক্সিকোর তাবাস্কোতে অতিবৃষ্টির জন্য বন্যা হচ্ছে। এখন ওখানকার ৮০% অন্চল পানির নীচে, হাজার হাজার মানুষ গৃহহীন, অর্থনীতি থেমে গেছে আর সব ফসল নষ্ট হয়ে গেছে। পুরো এলাকাকে দুর্যোগপূর্ণ এলাকা ঘোষনা করা হয়েছে আর তিন মাসের বেশী সময় লাগবে পানি পুরো সরে যেতে। অনেকে বলছে যে নিউ অরলিন্সের (ক্যাটরিনা দুর্যোগ) থেকে এখানে অবস্থা খারাপ।

বুসেফালো (স্প্যানিশ ভাষায়) তার অভিজ্ঞতা থেকে লিখেছেন আর কি সাহায্য লাগবে তার একটা তালিকা দিয়েছে:

এখানে বহনযোগ্য পানি নেই আর বিশুদ্ধ পানি পরিবহনের জন্য ট্রাক নেই… যা মজুদ ছিল তা শেষ হয়ে যাচ্ছে আর না পাওয়ার ভয়ে মানুষ কিনে সব মজুদ করেছে, কিন্তু তা বাস্তব কারনে মজুদ রাখা যাবে না। যাদের দোকানে এখনও জিনিষ আছে তারা পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে । আমি পেট্রোল নেয়ার জন্য যে বড় লাইন তার কোন মানে বুঝছি না কারন পানি ঘেরা অবস্থায় লোকে গাড়ি নিয়ে কোথায় যাবে ?

এনিগমাটারিও ঘন্টায় ঘন্টায় সাম্প্রতিক পরিস্থিতি জানাচ্ছে।

রিয়ালিদাদ নোভালেদার জে. এস. জোলিকার সাম্প্রতিক ঘটনার বেশ কিছু পরিসংখ্যান দিয়েছেন।

- ৮৫০ শহর বন্যাকবলিত – দেশের প্রায় ৭০% – আর বন্যা পানি বিপদসীমার ২ ইঞ্চি থেকে ৩৬ ফিট পর্যন্ত উপরে
– প্রায় ৮০,০০০ পরিবার তাদের সবকিছু হারিয়েছে
– প্রায় ৩০,০০০ লোককে ২৬৯ আশ্রয়কেন্দ্রে থাকতে হয়েছে
– সামনে আরো বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে

মেক্সিকো সরকার তাবাস্কোর ১৭টি মিউনিসিপালিটিতে জরুরী অবস্থা জারী করেছে।

- মেক্সিকোর সরকার আর সাহায্যকারি সংস্থারা অনেক জায়গায় পৌছাতে পারছে না বন্যার পানিতে রাস্তা ডুবে যাওয়ার জন্য।
– মেক্সিকো সরকারের তথ্য অনুযায়ী প্রায় ৩০০,০০০ লোক পানি বৃদ্ধিও কারনে সাহায্য থেকে বঞ্চিত হচেছ।
– মেক্সিকোর সরকার পাশের শহর চিয়াপাসের জন্য বন্যা সর্তকীকরন ঘোষনা করেছে আর বিপদজনক এলাকা থেকে লোক সরাচ্ছে
– জরুরীভাবে খাবার, পানি, ওষুধ আর পরিষ্কার করার জিনিষ দরকার।

জনসাস্থ্য সচিব বলেছেন যে এই সপ্তাহে অসুখের প্রকোপ থামানোর জন্য বিজানুমুক্ত অভিযান চালানো হবে । তিনি প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাও অনুপ্রানিত করেছেন যেমন মরা প্রাণী মাটি চাপা দেয়া আর জমে থাকা পানি পরিষ্কার করা ।

সরকার ভয় পাচ্ছে যে অসুখ বিস্তার লাভ করবে আর যে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে তা যথেষ্ট নয়। এই দুর্যোগ মোকাবেলা সরকারের ক্ষমতার বাইরে। ভাগ্য ভালো যে পুরো দেশ দ্রুত সাহায্যে এগিয়ে এসেছে।

মারগারিটা আলমাদা আমাদের বলেছেন কি করে ২০ পেসো থেকে শুরু করে খাবার, পানি , কাপড় পাঠানো যায় আর কোথায় পাঠানো যায়। ভিডিও পাঠিয়েছেন দারিয়া যেখানে ক্ষতির এরিয়াল চিত্র আছে।

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .