বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

ব্লগ একশন দিবসঃ আফ্রিকাবাসী ও প্রবাসীদের কন্ঠে

আজকে (১৫ই অক্টোবর) পৃথিবীর অনেক ব্লগার একটি বিশেষ বিষয়ে লিখবেন, সেটি হচ্ছে পরিবেশ। আফ্রিকাবাসী ও এ মহাদেশের প্রবাসী যে ব্লগগুলো এতে অংশগ্রহন করেছে সেগুলো বিষয়বস্তুতে আর ধরনে বেশ বিচিত্র। এখানে দেয়া হলো কেনিয়া, দক্ষিন আফ্রিকা, নাইজেরিয়া এবং অন্যান্য জায়গা থেকে এ সংক্রান্ত লিঙ্ক এবং আরো কিছু কথা।

কেনিয়া

আফ্রিগ্যাজেট লিখেছেন, ”যেখানে অন্যেরা জন্জাল দেখে সেখানে আফ্রিকা পুন:ব্যবহার (রিসাইকেল) করে।” নীচের ছবিতে দেখা যাচ্ছে কামার সাইমনের সৃষ্টির একটি ছবি, যিনি লোহার জন্জাল থেকে ভাস্কর্য তৈরি করেন।

কেনিয়া এনভায়রনমেন্ট নিউজ ব্লগে ফিল দুটি লেখা দিয়েছেন; একটি “পরিবেশের পরিবর্তন আর ছোঁয়াচে অসুখ” আর একটি “দারিদ্রতা এবং পরিবেশ”।

যেহেতু গরিবদের আর্থিক ক্ষমতা সীমিত তাই তারা পরিবেশের উপর নির্ভর করে তাদের মৌলিক জীবনধারনের নিমিত্ত যেমন পানি, খাদ্য, আশ্রয় ইত্যাদির জন্য। যখন পরিবেশ দুষিত হয় ও এই নিমিত্তগুলো সহজলভ্য না হয় তখন গরিব লোকের ভালো থাকার জন্য যে সব সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা তা নিতে তারা ব্যর্থ হয়। যতক্ষন না গরিবদের পরিবেশের উপর উচ্চ মাত্রার নির্ভরতা কমান যায় ততক্ষন দারিদ্রতা দূর করা যাবেনা।

নাইরবি, কেনিয়া থেকে রব লিখেছেন, “একটা সুবিধাজনক ওজর” যেখানে প্রায়শ:ই উচ্চারিত পরিবেশ পরিবর্তন আর দারফুরের সমস্যার মধ্যকার সম্পর্ক নিয়ে বলা হয়েছে। তিনি গ্লোবাল ওয়ার্মিং এর সাথে কেনিয়ার যাযাবরদের জীবনে যে সমস্যা হচ্ছে তারো একটি সম্পর্ক পেয়েছেন।

মাজুঙ্গু চিক কেনিয়ায় ইকোটুরিজম নিয়ে লিখেছেন

পরিসংখ্যানে দেখা যায় যে আমাদের অর্থনীতির ১২% পর্যটকদের খরচ করা অর্থ থেকে আসে আর প্রায় পাঁচ লাখ কেনিয়ানের জীবিকা এই ভ্রমন ইন্ডাস্ট্রির উপর নির্ভর করে যার জন্যে এটির দিকে খেয়াল রাখা আমাদের জন্য জরুরী।

কেনিয়ানরা এই ব্যাপারটি ভালো করে জানে আর তাই তারা পর্যটন শিল্পের উন্নতির জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছে। তারা কেনিয়ার প্রকৃতি সংরক্ষনের জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে যার ফলে সশ্লিষ্ট গোত্রের জীবনযাত্রার উন্নতি হবে।

কিকুইউমজা যে সব জিনিষ সে আরো দেখতে চায় তার উপর লিখেছে; পানির ব্যবহার ছাড়া মুত্রালয় এবং প্লাস্টিকের পরিবর্তে কাগজ দিয়ে বানানো কিউ টিপস

দক্ষিন আফ্রিকা

কার্বন কপি ব্লগের রোরি ১৫ থেকে ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত বেশ কয়েকটি লেখা প্রকাশ করবেন যার মধ্যে প্রথমটা হলো “শেডস অফ গ্রিন”।

যদি আমাকে পরিবেশ রক্ষার জন্যে একটি সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কথা বলতে বলা হয় তাহলে আমি বলব যে একটি পরিষ্কার সমাধান এই চ্যালেঞ্জের নেইঃ এখানে সব সময় সবুজের নানা শেড দেখা যায় কিন্তু কোনটিই সম্পূর্ণ সবুজ নয়।

কোন একটি সঠিক পছন্দ এখানে নেই, কোন সঠিক সিদ্ধান্ত তৈরি করা নেই, কোন দেশ থেকে একটা সঠিক অভ্যাস নিয়ে নিজের দেশে প্রয়োগ করার অবকাশ নেই। তবে কোন কোন দিকচিহ্ন আছে যাকে আমরা কোন বিশেষ সমস্যার সমাধান হিসেবে নিতে পারি, কিন্তু যেমন প্রযুক্তি আর জ্ঞানের ক্রমাগত বিকাশ ঘটে তার সাথে সাথে এই সমাধানের চিহ্নও পালটায়।

এইশ জিজ্ঞেস করেছেন, ”ব্লগ একশান দিবস- কেন কিছু করব?” আর তার পরে ‘প্রকৃতি’ বিষয়ে আলোচনা করেছেন যা প্রত্যেকের জন্য জরুরী এবং ব্যাখ্যা করেছেন কেন প্রত্যেকের এর প্রতি খেয়াল রাখা উচিত।

টারবোস্প্রাউট সবুজ খবরগুলোর (গ্রিন নিউজ) একটি পরিক্রমা দিয়েছেন

ফ্লিন্ট ডট জা ব্লগ বাড়িতে কি করে কম বিদ্যুত ব্যবহার করা যায় তা নিয়ে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন

এস এ রক ব্লগের নিক নিজের দেশ ওবং এর প্রাকৃতিক সম্পদ নিয়ে খুব গর্বিত। তিনি দক্ষিন আফ্রিকার প্রকৃতি আর প্রানীজগত সংক্রান্ত কিছু স্থানের বিবরণ দিয়েছেন আর অনুরোধ করেছেন সবাইকে দক্ষিন আফ্রিকাকে এমন সুন্দর রাখতে।

নোটস ফ্রম দা আন্ডারগ্রাউন্ড গতানুগতিক পরিবেশবাদের উপর কিছু লিন্ক দিয়েছেন

ওয়ার্কসাক্স কিভাবে অফিসে কাগজের অপচয় রোধ করা যায় তা নিয়ে কিছু টিপস দিচ্ছেন

কুইর্ক ই-মার্কেটিং এর সারাহ ম্যানার্স লিখছেন “বিশ্বকে বাঁচাতে; একটি করে ব্লগের লেখা“।

জাভান্না পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন বেন সন্ডার্স, একজন মেরু-পর্যটককে।

জেন্টি পেট্রোল এবং তেল শোধনাগার থেকে বায়ুদুষনের একটি ছবি পোস্ট করেছেন। তিনি তার চার বছর বয়সী ছেলের সাথে একটি কথোপকথন তুলে ধরেছেন যেখান থেকে বায়ু দুষন সম্পর্কে একটি নতুন পরিপ্রেক্ষিত তিনি পেয়েছেন।

নাইজেরিয়া:

ওমুদুদু নাইজার ডেল্টা সম্পর্কে লিখেছেন:

হাজারো কন্ঠের মধ্যে থেকে শুনুন আমার কন্ঠ। আমি দাবী করছি নাইজার ডেল্টা থেকে তেল আহরন করা কম্পানিগুলো আমার দেশ (নাইজেরিয়া) এবং আমার দেশের জনগনকে শ্রদ্ধার সাথে দেখবে। ধন্যবাদ।

অন দা হিল ব্লগ পরিবেশ সহায়ক ডিজাইনের মাধ্যমে পরিবেশ রক্ষার ব্যপারে আলোকপাত করছেন।

জিয়ামারো একটি আকুতি জানাচ্ছে যা হচ্ছে:

আসুন আমরা একে অপরের প্রতি এবং আমাদের বাসভুমির প্রতিও সহানভুতিশীল হই। যদি আমরা এই বাসভুমি হারিয়ে ফেলি তাহলে আমাদের আর কি থাকবে?

বিশ্ব নাগরিকেরা

মাইগ্রেশনস ব্লগের ড্যান পরিবেশ দুশন এবং অভিবাসী পাখির ক্রমহ্রাসমান সংখ্যার মধ্যে একটি সংযোগ খুঁজে পান।

ক্রিসক্রসড ব্লগ ভারত, কেনিয়া, ঘানা, নাইজেরিয়া এবং চীনের উপাত্ত ও ঘটনা দিয়ে বিশ্বব্যাপী পরিবেশদুষনকারী বর্জের সমস্যা আলোচনা করছে।

ব্লুড্রীমার ব্লগ বিশ্বব্যাপী বেআইনি বনের গাছ কাঁটা সম্বন্ধে লিখেছেন

বাজুঙ্গুবাকস ব্লগ পরিবেশ রক্ষার জন্যে বিভিন্ন উদ্যোগের লিন্ক এবং এদের উপর তার মতামত দিয়েছেন

সর্বশেষে নো ব্যাড ডে ব্লগের সর্বোচ্চ প্রাধিকার তাদের পরবর্তী বাড়ি কেনার সময় তারা যেন বাইরে কাপড় মেলার জন্যে দড়ি টানাতে পারে।

এই পোষ্টের কিছু লিঙ্কের জন্য হোয়াইট আফ্রিকান ব্লগের এরিককে বিশেষ ধন্যবাদ এবং সমস্ত ব্লগারদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি যারা ব্লগ একশন ডে তে অংশগ্রহণ করলেন।

- জুলিয়ানা রটিচ

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .