বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

মিয়ানমারঃ প্রার্থনা আর পার্শ্ববর্তী দেশের সমর্থন

ক্যাম্বোডিয়ার ব্লগার মিন লাক্স নম পেনে মিয়ানমার দুতাবাসের সামনে তাদের অবস্থান কর্মসূচীর ছবি পাঠিয়েছে।

ফেসবুক ব্যবহারকারীরাও বৃহস্পতিবার বার্মার জন্য রেড শার্ট ক্যাম্পেন শুরু করেছে আর সাথী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের আহ্বান করেছে যাতে তারা শুক্রবার মিয়ানমারের ভিক্ষুদের সমর্থনে লাল শার্ট পরে।

আরো দেখুনঃ কেন সোপহিপ লাল গেঞ্জি পরেছে? (বেথ কান্টার)

মালায়শিয়ার ব্লগার এলিজাবেথ ওয়োং কুয়ালালাম্পুরে ভিক্ষুদের সমর্থনে বিক্ষোভের কথা জানিয়েছেন।

(ছবি: এলিজাবেথ ওয়োং এর ব্লগ থেকে)

প্রায় ২০০০ বার্মিজ আর মালয়শিয়ান এই বিক্ষোভে অংশগ্রহন করেছেন। তারা বার্মায় গনতন্ত্রের দাবীতে আর ভিক্ষু, সাংবাদিক আর সাধারন জনগন হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন। এখন পর্যন্ত এটিই লোক একত্র করার সব থেকে দ্রুত ও সফল উদ্যোগ, যেহেতু তার আগের দিন রাত ৯ টায় আয়োজকদের জানানো হয়েছিল।

সিঙ্গাপুরে বার্মিজ মন্দিরের প্রার্থনার কথা জানিয়েছেন দ্যা অনলাইন সিটিজেন

গত কয়েক দিনে যারা বামায় বিক্ষোভ করতে গিয়ে মারা গেছে তাদের স্মরনে এই বিশেষ প্রার্থনা ছিল।

একটি বার্মিজ ছাত্র প্রার্থনার একটি লাইন আমাকে অনুবাদ করে শুনিয়েছিলঃ ”আমরা ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভকালে সম্প্রতি যারা মারা গেছে তাদের জন্য প্রার্থনা করি।”

প্রার্থনার পরিবেশ গম্ভীর ছিল আর যে ভিক্ষু প্রার্থনা পরিচালনা করছিলেন তিনি সবাইকে শান্তির জন্য আর যারা মারা গেছে তাদের জন্য প্রার্থনা করতে বলেন।


দ্যা অনলাইনসিটিজেন প্রার্থনার সময়ে কয়েকজন মিয়ানমারের নাগরিকের সাথে কথা বলেন। তাদের মত অনুয়ায়ী মিয়ানমারে বিক্ষোভের কারনঃ

সে বলেছে যে জুলাই মাসে জালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি শুধুমাত্র নিয়ামক হিসাবে কাজ করেছে বার্মিজ জনগনের মনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে যা ছিল তার অনুকূলে। “ মূল্যবৃদ্ধি শুধুমাত্র খুঁচিয়ে দিয়েছে কারন আসলে মিয়ানমারে জীবন যাত্রার মান মূল বিষয় আর একটি কারন হচ্ছে শাসকগোষ্ঠির নির্মমতা।”

আলোচনা শুরু করুন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .