বন্ধ করুন

আমাদের স্বেচ্ছাসেবক সম্প্রদায় কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের কোনা থেকে না বলা গল্পগুলো আপনাদের কাছে তুলে ধরতে। তবে আপনাদের সাহায্য ছাড়া আমরা তা পারব না। আমাদের সম্পাদনা, প্রযুক্তি এবং প্রচারণা দলগুলোকে সুষ্ঠুভাবে চলতে সহায়তার জন্যে আপনারা আপনাদের দানের অংশ থেকে কিছু গ্লোবাল ভয়েসেসকে দিতে পারেন।

সাহায্য করুন

উপরের ভাষাগুলো দেখছেন? আমরা গ্লোবাল ভয়েসেস এর গল্পগুলো অনুবাদ করেছি অনেক ভাষায় যাতে বিশ্বজুড়ে মানুষ এগুলো সহজে পড়তে পারে।

আরও জানুন লিঙ্গুয়া অনুবাদ  »

খবর: বাংলা ব্লগ খ্যাতিমানদের নিয়ে মেতেছে

কয়েক সপ্তাহ আগে বিনোদন জগতের সম্রাজ্ঞী প্যারিস হিলটন যখন জেলে গেলেন এবং ছাড়া পেলেন, মিডিয়া তার প্রতিটি মুহুর্তকে খবর বানানোর চেষ্টা করেছে। তার খাদ্যতালিকা সম্পর্কে আমরা জানতে পেরেছি, জেনেছি সৌন্দর্য রক্ষার্থে তিনি কি কি করেন, তার রহস্যজনক অসুখটাও আমাদের জানা হয়ে গেছে এমনকি তার অনুশোচনাগুলোও শুনে ফেলা হয়েছে। প্যারিস নিজেই এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করছেন। তিনি ঘোষনা করছেন যে তিনি একটি জেল ডায়রি লিখবেন, সর্ব্বোচ্চ মুল্য যে দেবে তার কাছেই এর স্বত্ব বিক্রি করা হবে। বাংলা ব্লগার কনফুসিয়াস প্যারিসের এই সমস্ত ঘটনা আগ্রহভরে অনুসরন করেছেন এবং ভাবছেন কেন বাংলাদেশী খ্যাতিমান রাজনীতিবিদরা মিডিয়াকে তেমনভাবে আকর্ষন করতে পারছেন না যদিও তাদের অনেকেই জেলে গমন করেছেন। ‘আমাদের দেশের প্রকাশকরা একটা রসিক বোধহয় এখনো হয়ে উঠেনি’ – তিনি মন্তব্য করেছেন।

প্যারিস যখন তার ডায়রী লেখায় ব্যস্ত ছিলেন দুজন নামকরা সাহিত্য ব্যক্তিত্ব বাংলা ব্লগস্ফিয়ারে আলোচিত হচ্ছিলেন। আলোচনার মুল বিষয়বস্তু ছিল বাক প্রকাশের স্বাধীনতা।

ঔপন্যাসিক সালমান রুশদী নাইট পদবীতে ভুষিত হয়েছেন – যা মুসলিম বিশ্বে প্রতিবাদের ঝড় তুলেছে। বাংলা ব্লগস্ফিয়ারেও এর জের চলছে। ব্লগার অপবাক ধর্মীয় মৌলবাদীদের এইসব প্রতিবাদকে লজ্জাজনক আখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলছেন যে এইসমস্ত শোরগোল এবং কথায় কথায় ফতোয়ার আশ্রয় নেয়ার মাধ্যমে মুসলিম বিশ্ব দিনে দিনে অন্য ধর্মের লোকদের কাছ থেকে দুরে সরে যাচ্ছে। ফলে ইসলামের ভালদিকগুলো আড়ালে পড়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশী নির্বাসিত লেখিকা অগ্নিময় তসলিমা নাসরিনের সাম্প্রতিক লেখা “তুমি ভাল থেকো প্রিয় দেশ” ব্লগারদের মাঝে তার উপর বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেয়া হবে কিনা এই আলোচনার জন্ম দিয়েছে। যেমন তারেক মনে করছেন তসলিমা নাসরীনকে তার মাতৃভুমি বাংলাদেশে ফিরে আসতে দেয়া উচিৎ।

বাক স্বাধীনতা প্রসঙে মনে হচ্ছে বাংলা ব্লগোস্ফিয়ারের আরও জায়গা দরকার নিজদের প্রকাশের জন্যে। সামহোয়্যার ইন থেকে বের হয়ে এসে একদল ব্লগার ‘সচলায়তন’ নামে একটি নতুন বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম চালু করেছেন। অরুপের বক্তব্য অনুযায়ী এই প্লাটফর্মটি একটি আনলাইন ম্যাগাজিনের মত করেই ব্যবহার করা হবে যেখানে অংশগ্রহনকারীরা তাদের নিজস্ব ব্লগের জায়গা পাবে। যদিও বর্তমানে এটি সব পাঠকের কাছ থেকে মন্তব্য গ্রহন করে না এবং খুব শক্ত হাতে মডারেট করা হয়। আমরা অপেক্ষা করছি দেখার জন্য যে এই নতুন জায়গায় কিভাবে কথোপকথন বেড়ে ওঠে।

- অপর্না রায়

1 টি মন্তব্য

  • Arif Jebtik

    “সামহোয়্যার ইন থেকে বের হয়ে এসে একদল ব্লগার ‘সচলায়তন’ নামে একটি নতুন বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম চালু করেছেন।”……..সচলায়তনের কেউ কি কোথাও বলেছেন যে তারা সামহোয়্যার থেকে বেরিয়ে এসেছেন?তারা কি সামহোয়্যারে লেখালেখি বন্ধ করে দিয়েছেন?

    না তেমন কোন ঘটনা ঘটে নি।
    তবু সচলায়তকে শুনতে হচ্ছে অপবাদ যে এটি সামহোয়্যার ভেঙ্গে তৈরী হওয়া,এটা আসলেই দূ:খজনক।

আলোচনায় যোগ দিন

লেখকেরা, অনুগ্রহ করে লগ ইন »

নীতিমালা

  • অনুগ্রহ করে অপরের মন্তব্যকে শ্রদ্ধা করুন. যেসব মন্তব্যে গালাগালি, ঘৃণা, অবিবেচনা প্রসূত ব্যক্তিগত আক্রমণ থাকবে সেগুলো প্রকাশের অনুমতি দেয়া হবে না .